বৃহস্পতিবার ২রা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

মিরপুরের পাঁচ মেয়ে উদ্ধার, গ্রেপ্তার ৫, তিন বান্ধবী এখনো নিখোঁজ

উত্তরা ডেস্ক   |   বুধবার, ০৬ অক্টোবর ২০২১ | প্রিন্ট

মিরপুরের পাঁচ মেয়ে উদ্ধার, গ্রেপ্তার ৫, তিন বান্ধবী এখনো নিখোঁজ

রাজধানীর মিরপুর থেকে ‘নিখোঁজ’ পাঁচ মেয়েশিশুকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। এদের দুজনকে সদরঘাট থেকে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি, মিরপুর) এবং বাকি তিনজনকে নেত্রকোনা ও গাজীপুর থেকে উদ্ধার করে মিরপুর ও রূপনগর থানা পুলিশ।

তবে ছয় দিন পেরিয়ে গেলেও পল্লবী থেকে নিখোঁজ তিন বান্ধবীকে উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ। সোমবার দিবাগত রাতে ভিকটিমদের ডিবির মিরপুর বিভাগ, মিরপুর ও রূপনগর থানা পুলিশ পৃথকভাবে উদ্ধার করে। দুটি ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অপরাধে পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

ডিবি ও থানা পুলিশ সূত্র জানান, ২৯ সেপ্টেম্বর মিরপুরের আনসার ক্যাম্প এলাকার দুই শিশু পরিবারের সঙ্গে অভিমান করে বাসা থেকে বের হয়ে পথে একটি চক্রের ফাঁদে পড়ে। তাদের সদরঘাট থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। এর আগে তাদের মিরপুর এভিনিউ-৫-এর একটি কারখানায় আটকে রেখেছিল সাব্বির, আল আমিন ও আরমান নামে তিন যুবক। এদের গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

এ বিষয়ে ডিবির (মিরপুর) উপকমিশনার মানস কুমার পোদ্দার বলেন, মিরপুর থেকে নিখোঁজ দুই মেয়েকে উদ্ধার করা হয়েছে। তাদের পল্লবীর একটি বাসায় আটকে রাখা হয়েছিল। ঘটনার সঙ্গে জড়িত সাব্বির, আল আমিন ও আরমানকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এরা গেঞ্জি কারখানার শ্রমিক। মেয়েদের পরিবারের পক্ষ থেকে মিরপুর থানায় মামলা করা হচ্ছে। উদ্ধারকৃত মেয়েদের ঢাকা মেডিকেল কলেজে ওয়ানস্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে পাঠানো হয়েছে।

কেন ঘর ছেড়েছিল- এ প্রশ্নের জবাবে ডিসি মানস কুমার জানান, প্রাথমিকভাবে শিশুরা জানিয়েছে বাবা-মায়ের বকুনির কারণে তারা অভিমান করে একসঙ্গে বাসা থেকে বের হয়। এরপর তারা পথে কোনো একটি খারাপ চক্রের খপ্পরে পড়ে। পরে কৌশলে চক্রের হাত থেকে রক্ষা পায়। এরপর তারা নিজেরাই সদরঘাটে যায় বরিশালের উদ্দেশে। এদের মধ্যে এক শিশুর নানাবাড়ি বরিশালে। লঞ্চে করে সেখানেই যাওয়ার চিন্তাভাবনা ছিল তাদের।

৩ অক্টোবর মিরপুরের জনতা হাউজিং এলাকা থেকে নিখোঁজ দুই শিশু নেত্রকোনা থেকে উদ্ধার হয়। তারা তাদের ঘনিষ্ঠ দুই তরুণের সঙ্গে দেখা করতে মিরপুর থেকে নেত্রকোনায় গিয়েছিল। তাদের উদ্ধারের সময় রাব্বি ও সাগর নামে দুই তরুণকে আটক করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন মিরপুর মডেল থানার ওসি।

মণিপুর স্কুলের উদ্ধার হওয়া ছাত্রীর বিষয়ে রূপনগর থানার উপপরিদর্শক মাসুদুর রহমান বলেন, একটি ছেলের সঙ্গে সম্পর্কের কারণে বাবা-মায়ের বকুনি খেয়ে ওই ছাত্রী বাড়ি ছেড়ে গাজীপুরে এক আত্মীয়ের বাসায় গিয়ে আত্মগোপন করে। অন্যদিকে, গত ছয় দিনেও পল্লবী থেকে নিখোঁজ তিন কলেজছাত্রীকে পাওয়া যায়নি। বৃহস্পতিবার বাসা থেকে বের হয়ে তিন কলেজছাত্রী নিখোঁজ হন। তারা নগদ টাকা, সোনার অলঙ্কার ও মোবাইল ফোন নিয়ে গেছেন বলে অভিযোগ করেছে পরিবার। গতকাল পর্যন্ত তাদের খোঁজ মেলেনি। পুলিশ ও নিখোঁজ শিক্ষার্থীদের স্বজনদের সন্দেহ, তারা কোনো মানব পাচারকারী চক্রের খপ্পরে পড়েছেন। এ ঘটনায় চারজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

রকিবুল্লাহ নামে একজনকে দুই দিনের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। তিন কলেজছাত্রীর বিষয়ে র‌্যাব-৪-এর পরিচালক মোজাম্মেল হক বলেন, ‘তাদের খোঁজ পেতে কাজ চলছে। আশা করি শিগগিরই সন্ধান মিলবে।’

সূত্র: বিডি প্রতিদিন

উত্তরা প্রতিদিন/ তৌফিকুল ইসলাম

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ১১:৩৭ পূর্বাহ্ণ | বুধবার, ০৬ অক্টোবর ২০২১

uttaraprotidin.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

এনায়েত করিম সম্পাদক (ভারপ্রাপ্ত)
প্রধান কার্যালয়

৫৩০ (২য় তলা), দড়িখরবোনা, উপশহর মোড়, রাজশাহী-৬২০২

ফোন: ০৭২১-৭৬০১৪৩, ০১৯৭৭১০০০২৭

E-mail: uttaraprotidin@gmail.com