রবিবার ১৭ই অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১লা কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম >>
শিরোনাম >>

নিম্নচাপ পরিণত হয়েছে ঘূর্ণিঝড় ‘গুলাবে’

উত্তরা ডেস্ক   |   রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ | প্রিন্ট

নিম্নচাপ পরিণত হয়েছে ঘূর্ণিঝড় ‘গুলাবে’

পূর্ব-মধ্য বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন উত্তর-পূর্ব বঙ্গোপসাগরে একটি গভীর নিম্নচাপ অবস্থান করছিল গতকাল রাতে। নিম্নচাপটি ঘূর্ণিঝড় ‘গুলাবে’ রূপ নিয়েছে। তবে এটি বেশ ঘনীভূত হয়ে তীব্র রূপ নেওয়ার শঙ্কা নেই।

ভারতের অন্ধ্র প্রদেশ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় এর প্রভাব পড়তে পারে। বাংলাদেশে এর তেমন কোনো প্রভাব পড়ার আশঙ্কা নেই। তবে উপকূলীয় এলাকায় বৃষ্টির প্রবণতা বাড়বে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা।

এদিকে, গত শুক্রবার থেকেই দেশের বিভিন্ন এলাকায় ভাপসা গরম শুরু হয়েছে। বৃষ্টি নামলে এই গরমের অস্বস্তি কেটে যাবে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা। এরই মধ্যে গতকাল দেশের বিভিন্ন এলাকায় বৃষ্টি হয়েছে। ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মোংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে ২ নম্বর হুঁশিয়ারি সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) রাতে আবহাওয়ার বিশেষ বিজ্ঞপ্তিতে (ক্রমিক নম্বর-২) এ তথ্য জানিয়েছে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর।

এতে আরো বলা হয়, গভীর নিম্নচাপটি গতকাল সকাল ৯টায় চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দর থেকে ৪৮০ কিলোমিটার দক্ষিণ-দক্ষিণ পশ্চিমে, কক্সবাজার সমুদ্রবন্দর থেকে ৪১৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-দক্ষিণ পশ্চিমে, মোংলা সমুদ্রবন্দর থেকে ৪৫০ কিলোমিটার দক্ষিণে এবং পায়রা সমুদ্রবন্দর থেকে ৪০৫ কিলোমিটার দক্ষিণে অবস্থান করছিল। এটি আরো ঘনীভূত হয়ে পশ্চিম-উত্তর পশ্চিম দিকে অগ্রসর হতে পারে।

আবহাওয়াবিদরা জানান, কয়েক দিনের মধ্যে সাগরে আরেকটি লঘুচাপ সৃষ্টির আশঙ্কা রয়েছে, তা বাংলাদেশের দিকে আসতে পারে। ২৭ সেপ্টেম্বর নাগাদ এটি সুস্পষ্ট লঘুচাপে পরিণত হতে পারে। এটি ২৯ সেপ্টেম্বর নাগাদ নিম্নচাপে রূপ নিতে পারে। এর দিক হতে পারে পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশ উপকূলের দিকে।

গতকাল সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রামের অনেক জায়গায় এবং রংপুর, রাজশাহী, ঢাকা ও সিলেট বিভাগের দুই-এক জায়গায় বিক্ষিপ্তভাবে হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দক্ষিণাঞ্চলের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারি বর্ষণ হতে পারে। গতকাল দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে তেঁতুলিয়ায় ৩৬.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এ সময় রাজধানীতে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ৩৫.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড়ের মধ্যে সর্বশেষ গত মে মাসে ‘ইয়াস’ ভারতের ওড়িশা উপকূলে আঘাত হেনেছিল। গত বছর মে মাসে ‘আম্ফান’ নামে আরেকটি ঘূর্ণিঝড় বাংলাদেশে আঘাত হেনেছিল।

সূত্র:কালেরকণ্ঠ

উত্তরা প্রতিদিন/ তৌফিকুর ইসলাম

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ১১:৫৩ পূর্বাহ্ণ | রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১

uttaraprotidin.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

এনায়েত করিম সম্পাদক (ভারপ্রাপ্ত)
প্রধান কার্যালয়

৫৩০ (২য় তলা), দড়িখরবোনা, উপশহর মোড়, রাজশাহী-৬২০২

ফোন: ০৭২১-৭৬০১৪৩, ০১৯৭৭১০০০২৭

E-mail: uttaraprotidin@gmail.com