শনিবার ১৮ই সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৩রা আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

বাদামের বাম্পার ফলনেও কৃষকের মুখে হাসি নেই!

আশিকুর রহমান, লালপুর (নাটোর) প্রতিবেদক   |   সোমবার, ০৯ আগস্ট ২০২১ | প্রিন্ট

বাদামের বাম্পার ফলনেও কৃষকের মুখে হাসি নেই!

দল বেধে বাদাম ছিঁড়ছেন পদ্মার চরাঞ্চলের মহিলারা

উত্তরাঞ্চলের পদ্মা নদীবিধৌত নাটোরের লালপুরে পদ্মাচরে চলতি মৌসুমে বাদামের বাম্পার ফলন হয়েছে। বাদামের আশানুরূপ ফলনে বাদাম চাষীদের বুকে নতুন করে আশার সঞ্চার হয়, হাসি ফুটে চরাঞ্চলের এই প্রান্তিক কৃষকদের মুখে। কিন্তু এই হাসি বেশিদিন টেকেনি সর্বনাশা পদ্মা নদীতে হঠাৎ করেই আগাম পানি ঢুকায় তলিয়ে গেছে চরাঞ্চলেরর অধিকাংশ ক্ষেতের বাদাম। ফলে বাম্পার ফলন হলেও জমি থেকে বাদাম ঘরে তুলতে না পারায় বাদাম চাষীদের হাসি যেন এক নিমিশেই মিলিয়ে গেছে।

লালপুর উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, চলতি মৌসুমে লালপুরের পদ্মার চরাঞ্চলে ৩৭০ হেক্টর জমিতে বাদাম চাষের লক্ষমাত্রা থাকলেও চাষ হয়েছে ৪৪০ হেক্টর জমিতে। যা লক্ষমাত্রার চেয়েও ৭০ হেক্টর বেশি। এই সকল জমি থেকে হেক্টর প্রতি ২ মেক্ট্রিক টন হিসেবে ৮৮০ মেক্ট্রিক টন বাদাম উৎপাদনের লক্ষমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে।

চরাঞ্চলের বাদাম চাষীরা জানায়, ‘এক বিঘা জমিতে বাদাম রোপনের জন্য বীজ বাদাম ক্রয়, রোপন, শ্রমিক ও কীটনাশক থেকে শুরু করে বাদাম বিক্রয় পর্যন্ত তাদের বিঘা প্রতি ৭-৮ হাজার টাকা খরচ হয়। আর এক বিঘা জমি থেকে প্রায় ৭ মণ বাদাম উৎপাদন হয়। যা বাজারে বিক্রয় করে ১২-১৪ হাজার টাকা আয় হয়। খরচ বাদ দিয়ে বিঘা প্রতি ৫-৭ হাজার টাকা লাভ হয়। কিন্তু এবার হঠাৎ আগাম নদীতে পানি আসায় কৃষকের আশায় গুড়ে বালি পড়েছে।

কথা হয় পদ্মার চরাঞ্চলের বাদাম চাষী মানিক মন্ডল সঙ্গে। তিনি এবছর এনজিও থেকে ঋণ নিয়ে চরে ২ বিঘা জমিতে বাদাম চাষ করেছিলেন। এবার আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় বাদামও ভালো হয়েছিলো কিন্তু নদীতে আগাম পানি আশায় এক রাতে তার বাদাম ক্ষেত তলিয়ে গেছে। কোন রকমে তিনি দুই মণ বাদাম ঘরে তুলতে পেরেছেন। এখন কিভাবে এনজিওর ঋণ পরিশোধ করবনে। এবার তার অনেক টাকা ক্ষতি হয়েছে। তিনি আরো জানায়, ‘তার মতো এই এলাকার অনেকেই চরে বাদাম চাষ করেছিলো। কিন্তু অধিকাংশ কৃষকই তাদের বাদাম ঘরে তুলতে পারেনি। এতে প্রায় কৃষকই ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছেন’।

লালপুর উপজেলা কৃষি অফিসার রফিকুল ইসলাম জানায়, ‘এবার পদ্মার চরে বাদামের বাম্পার ফলন হয়েছিলো। কিন্তু হঠাৎ নদীতে পানি আসায় চরাঞ্চালের কিছু বাদাম ক্ষেত তলিয়ে গেছে। এতে কিছু কৃষকের ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে বলে জানান এই কর্মকর্তা।’
পদ্মার চরাঞ্চলের বাদাম চাষিরা তাদের এই ক্ষতি পুষিয়ে নিতে কৃষিবান্ধব বর্তমান সরকারের কাছে প্রণোদনার দাবি জানিয়েছেন।

উত্তরা প্রতিদিন/ আমিনুল

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ১০:৩৪ অপরাহ্ণ | সোমবার, ০৯ আগস্ট ২০২১

uttaraprotidin.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১  
আব্দুল্লাহ্ আল মাহমুদ বাবলু সম্পাদক
এনায়েত করিম প্রধান বার্তা সম্পাদক
প্রধান কার্যালয়

৫৩০ (২য় তলা), দড়িখরবোনা, উপশহর মোড়, রাজশাহী-৬২০২

ফোন: ০৭২১-৭৬০১৪৩, ০১৯৭৭১০০০২৭

E-mail: uttaraprotidin@gmail.com