রবিবার ১৭ই অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১লা কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম >>
শিরোনাম >>

বাঘায় বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছার ৯১ তম জন্মদিন উপলক্ষে দোয়া এবং আলোচনা সভা

বাঘা (রাজশাহী) প্রতিবেদক   |   রবিবার, ০৮ আগস্ট ২০২১ | প্রিন্ট

বাঘায় বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছার ৯১ তম জন্মদিন উপলক্ষে দোয়া এবং আলোচনা সভা

উপজেলা পরিষদ সভাকক্ষে বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছার ৯১ তম জন্মদিন উপলক্ষে দোয়া এবং আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়

-প্রতিনিধি

রাজশাহীর বাঘায় সারা দেশের ন্যায় বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছার ৯১ তম জন্মদিন উপলক্ষে দোয়া এবং আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

রোববার সকালে বাঘা উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে আয়োজিত বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছার ৯১ তম জন্মদিন উপলক্ষে দোয়া এবং আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির ছিলেন বাঘা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক এড: লায়েব উদ্দিন লাভলু।

সকাল ১১ টায় উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা পঙ্কজ দাসের সঞ্চালনা ও বাঘা উপজেলার সুযোগ্য নির্বাহী কর্মকর্তা পাপিয়া সুলতানার সভাপতিত্বে আয়োজিত সভায় অন্যান্যদের মধ্য বক্তব্য রাখেন, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) মনিরুজ্জামান, উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম বাবুল, যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম মন্টু, অধ্যক্ষ নছিম উদ্দিন, বাঘা থানা অফিসার ইনচার্জ সাজ্জাদ হোসেন, উপজেলা আ’লীগের সম্মানীত সদস্য মাসুদ রানা তিলু, সাংগঠনিক সম্পাদক ওয়াহেদ সাদিক কবির, মৎস্য কর্মকর্তা আমিরুল ইসলাম ও বাঘা প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক নুরুজ্জামান ।

উপস্থিত  ছিলেন বাঘা উপজেলা পরিষদের নারী ভাইস চেয়ারম্যান রিজিয়া আজিজ সরকার, বাঘা পৌর সভার প্যানেল মেয়র শহিনুর রহমান পিন্টু, উপজেলার সকল দপ্তরের প্রধান কর্মকর্তা ও জনপ্রতিনিধি সহ সুশিল সমাজের নেত্রীবৃন্দ ।

সভায় বক্তারা বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বাঙালির সকল লড়াই-সংগ্রাম-আন্দোলনের নেপথ্যের প্রেরণাদাত্রী বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিবের ৯১ তম জন্মবার্ষিকী আজ । এই মহিয়সী নারী ১৯৩০ সালের এই দিনে (৮ আগস্ট) ফরিদপুর জেলার তৎকালীন গোপালগঞ্জ মহকুমার টুঙ্গীপাড়ায় জন্মগ্রহণ করেন। তার ডাকনাম ছিল রেণু। বাবার নাম শেখ জহুরুল হক ও মায়ের নাম হোসনে আরা বেগম। এক ভাই-দুই বোনের মধ্যে তিনি ছিলেন সবার ছোট ।

বক্তারা বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান দীর্ঘ আপোষহীন লড়াই-সংগ্রামের ধারাবাহিকতায় ধীরে-ধীরে শুধুমাত্র বাঙালি জাতির পিতাই হননি, বিশ্ব বরেণ্য রাষ্ট্রনায়কে পরিণত হয়েছিলেন। এর পেছনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিলেন তাঁরই সহধর্মিণী, মহিয়সী নারী বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন নেছা মুজিব। মাত্র পাঁচ বছর বয়সে বেগম মুজিব তার পিতা-মাতাকে হারান এবং ১৯৩৮ সালে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন নেছা মুজিব জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শুধু সহধর্মিণীই ছিলেন না, ছিলেন সহযোদ্ধা ও কর্মপ্রেরণাদাত্রী।

এই ত্যাগী নারী বঙ্গবন্ধু পরিবারের সব দায়িত্ব নিজ কাঁধে তুলে নিয়ে বঙ্গবন্ধুকে জাতির সেবায় মনোনিবেশ করার সুযোগ করে দিয়েছিলেন বলে আমরা আজ বাংলা ভাষায় কথা বলা সহ স্বাধীন দেশের নাগরিক হতে পেরেছি। আমরা বঙ্গমাতা ও বঙ্গবন্ধু সহ ঐ পরিবারের সাহাদত বরণ করা সকলের আত্নার মাগফিরাত ও দোয়া কামনা করছি।

আলোচনা শেষে উপজেলা মহিলা বিষয়ত অধিদপ্তরের পক্ষ থেকে সমাজের ২০ অসচ্ছল পরিবারকে স্বচ্ছলতা ফিরিয়ে আনার লক্ষ্যে তাদের মাঝে শেলাই ম্যাশিন বিতরণ করা হয়।

উত্তরা প্রতিদিন / শাহ্জাদা মিলন

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ১১:৩৭ অপরাহ্ণ | রবিবার, ০৮ আগস্ট ২০২১

uttaraprotidin.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১  
এনায়েত করিম সম্পাদক (ভারপ্রাপ্ত)
প্রধান কার্যালয়

৫৩০ (২য় তলা), দড়িখরবোনা, উপশহর মোড়, রাজশাহী-৬২০২

ফোন: ০৭২১-৭৬০১৪৩, ০১৯৭৭১০০০২৭

E-mail: uttaraprotidin@gmail.com