শুক্রবার ৩০শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১৫ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম >>
শিরোনাম >>

চার দেশের পাঁচ কণ্ঠস্বর

উত্তরা ডেস্ক   |   শুক্রবার, ০৯ জুলাই ২০২১ | প্রিন্ট

চার দেশের পাঁচ কণ্ঠস্বর

বাঁ থেকে দোরিয়া তিলিয়ের, জোডি ফস্টার, পেদ্রো আলমোদোভার ও বঙ জুন-হো

পয়লা দিনে চারটি ভাষাভাষি পাঁচ কণ্ঠস্বরকে হাজির করলো কান। সম্মানজনক এই আয়োজনের উদ্বোধনী মঞ্চে সমবেত হলেন আমেরিকান অভিনেত্রী জোডি ফস্টার ও পরিচালক স্পাইক লি, স্প্যানিশ পরিচালক পেদ্রো আলমোদোভার, দক্ষিণ কোরিয়ার পরিচালক বঙ জুন হো এবং ফরাসি অভিনেত্রী ও চিত্রনাট্যকার দোরিয়া তিলিয়ের। মঙ্গলবার (৭ জুলাই) সন্ধ্যায় ভূমধ্যসাগরের তীরে চলচ্চিত্র প্রদর্শনী ও উৎসবের প্রত্যাবর্তন তাই হয়ে গেলো অন্যরকম তাৎপর্যময়।

এবারের মাস্টার অব সিরিমনিস তথা উদ্বোধনী আয়োজনের সঞ্চালক ফরাসি অভিনেত্রী ও চিত্রনাট্যকার দোরিয়া তিলিয়ের। তিনি অনুষ্ঠানে বলেন, ‘ভালো দর্শক হতে নিজেকে হারিয়ে ফেলতে হয়! আমরা এখানে সেটাই করতে যাচ্ছি। ১১ দিনের জন্য আমরা নিজেরাই নিজের দিকে ফিরে তাকাবো না। আমরা হাসবো, ভাগাভাগি করবো এবং এমনকি একা মানুষ হিসেবে চলবো। কারণ সিনেমা আমাদের দেখার আহ্বান জানায়। এটি একটি মিষ্টি, উদ্দাম ও দারুণ ব্যাপার। আমরা যখন সিনেমার জাদুর কথাই বলি হয়তো সেটাই বোঝাতে চেয়েছি।’

জোডি ফস্টারের ক্যারিয়ারকে সম্মান জানাতে মঞ্চে আসেন পেদ্রো আলমোদোভার। তিনি তুলে দেন সম্মানসূচক স্বর্ণ পাম। এটি গ্রহণের পর জোডি ফস্টার চলচ্চিত্রের গুরুত্ব ও এর বিবর্তন প্রসঙ্গে বলেন, ‘লকডাউনে সিনেমাই ছিলো আমার লাইফলাইন। চলচ্চিত্রের প্রতি আমার বিস্ময় ও কৃতজ্ঞতা কখনো কমেনি।’’

বিশ্বব্যাপী মহামারির কারণে গত বছর বাতিল হওয়ার পর উৎসবটি কানসৈকতে আবার ফিরে আসায় গ্র্যান্ড থিয়েটার লুমিয়রে আবেগাপ্লুত হয়েছেন অতিথিরা। ৭৪তম কান উৎসব উদ্বোধন ঘোষণা করেন স্বর্ণ পাম জয়ী বঙ জুন হো।

২০২০ সালের অফিসিয়াল সিলেকশনে স্থান পাওয়া কয়েকটি ছবির কলাকুশলীরা প্রেক্ষাগৃহে ছিলেন। এবারের আসরের অফিসিয়াল সিলেকশনে থাকা ছবিগুলোর ক্লিপিংস দেখানোর আগে তাদের করতালিতে সিক্ত করেন অতিথিরা।

মূল প্রতিযোগিতা

গ্র্যান্ড থিয়েটার লুমিয়ের ও সাল দুবুসিতে মঙ্গলবার রাত ৭টা ২৫ মিনিটে দেখানো হয় ৭৪তম কান উৎসবের উদ্বোধনী ছবি ‘অ্যানেট’। সাল বাজিকে রাত ৯টা ৩০ মিনিটে আরেকবার এর প্রদর্শনী হয়েছে। এটি প্রখ্যাত ফরাসি পরিচালক লিও ক্যারাক্সের ষষ্ঠ ও ইংরেজি ভাষার প্রথম চলচ্চিত্র। আমেরিকার রন ও রাসেল মায়েল ভ্রাতৃদ্বয় এর চিত্রনাট্য লিখেছেন। এতে অভিনয় করেছেন অ্যাডাম ড্রাইভার ও মারিয়ন কঁতিয়া। সমকালীন লস অ্যাঞ্জেলসের পটভূমিতে নির্মিত সংগীতনির্ভর ছবিটির গল্প হেনরি ও অ্যান দম্পতিকে ঘিরে। হেনরি রসিক স্ট্যান্ড-আপ কমেডিয়ান আর অ্যান আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন গায়িকা। আপাতদৃষ্টিতে তারা পরিপূর্ণ, সুখী ও আকর্ষণীয় যুগল। প্রথম সন্তান অ্যানেট অন্যরকম এক উপহার নিয়ে জন্মের পরই হেনরি-অ্যানের জীবন বদলে যায়। মূল প্রতিযোগিতা বিভাগে স্বর্ণ পামের জন্য লড়ছে এই ছবি।

প্রতিযোগিতা বিভাগের বাইরে

চলচ্চিত্রের সাম্প্রতিক অতীত যেন স্বাগত জানায় অদূর ভবিষ্যতকে! কিন্তু লকডাউনে চলচ্চিত্র নির্মাতারা ছিলেন কোথায়? আইরিশ-স্কটিশ নির্মাতা মার্ক কাজিনসের ‘দ্য স্টোরি অব ফিল্ম: অ্যা নিউ জেনারেশন’ ছবি ছুড়ে দিয়েছে এমন প্রশ্ন। সাল দুবুসিতে বিকেল ৩টা ১৫ মিনিটে ছিলো এর বিশেষ প্রদর্শনী। ২ ঘণ্টা ৪০ মিনিট ব্যাপ্তির এই ছবির মাধ্যমে স্বাস্থ্যঝুঁকির আগের ও পরের সময়ের সেতুবন্ধন ঘটিয়েছেন নির্মাতা।

সিনেমা ডি লা প্লাজ

সূর্যাস্তের পরপরই কানের মাচি সৈকত ভরে ওঠে আলোয়। এখানে মঙ্গলবার রাত ৯টা ৩০ মিনিটে ছিলো হংকংয়ের ওঙ কার-ওয়াই পরিচালিত ‘ইন দ্য মুড ফর লাভ’-এর (২০০০) পুনরুদ্ধার সংস্করণ। উৎসবে অংশগ্রহণকারীদের পাশাপাশি পথচারীরা বিনামূল্যে উপভোগ করেছেন ছবিটি। ২১ বছর আগে কানে এর উদ্বোধনী প্রদর্শনী হয়েছিলো।

উত্তরা প্রতিদিন/ আমিনুল

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ২:৫০ অপরাহ্ণ | শুক্রবার, ০৯ জুলাই ২০২১

uttaraprotidin.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১  
আব্দুল্লাহ্ আল মাহমুদ বাবলু সম্পাদক
এনায়েত করিম প্রধান বার্তা সম্পাদক
প্রধান কার্যালয়

৫৩০ (২য় তলা), দড়িখরবোনা, উপশহর মোড়, রাজশাহী-৬২০২

ফোন: ০৭২১-৭৬০১৪৩, ০১৯৭৭১০০০২৭

E-mail: uttaraprotidin@gmail.com