বুধবার ২৮শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১৩ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম >>
শিরোনাম >>
রাতে পুলিশের অভিযান

আড়ানী পৌর মেয়রের বাড়িতে মিলল অস্ত্র,মাদক ও প্রায় কোটি টাকা

উত্তরা প্রতিবেদক   |   বুধবার, ০৭ জুলাই ২০২১ | প্রিন্ট

আড়ানী পৌর মেয়রের বাড়িতে মিলল অস্ত্র,মাদক ও প্রায় কোটি টাকা

 পুলিশের অভিযানে আড়ানী পৌরসভার মেয়র মুক্তারের বাড়ি থেকে উদ্ধার হওয়া অস্ত্র  

-উত্তরা প্রতিদিন

বাঘার আড়ানী পৌর এলাকার বাসিন্দা মনোয়ার হোসেন মজনু নামে এক ব্যাক্তিকে মারপিটের অভিযোগে বাঘার আড়ানী পৌর মেয়র মুক্তার আলীর বাড়িতে অভিযান চালায় পুলিশ।

মঙ্গলবার দিবাগত রাতে রাজশাহী জেলার ( সহকারি পুলিশ সুপার ) আবু সালে মোহা: আশরাফুল আলম, চারঘাট সার্কেলের ( এএসপি ) মো: রুবেল হোসেন ও বাঘা থানা (অফিসার ইনচার্জ) নজরুল ইসলাম সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে এ অভিযান পরিচালনা করেন।

এ সময় পুলিশ তাঁর বাড়ি থেকে চারটি অস্ত্র, ৪৩ রাউন্ড গুলি, ও মাদক উদ্ধার করেন। তবে মুক্তারকে না পেয়ে তার স্ত্রী ও দুই ভাতিজাকে আটক করেছে পুলিশ। এ ঘটনাটি ষড়যন্ত্র বলে দাবি করেছেন মেয়রের স্ত্রী ও তার আত্নীয় স্বজন।

থানা সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় আড়ানী পৌর এলাকার বাসিন্দা ও পল্লী চিকিৎসক মনোয়ার হোসেন মজনুকে তার বাড়িতে গিয়ে মারপিট করে মেয়র মুক্তার আলী (৫০) ও তার সহযোগী অংকুর আলী(৩২) সহ অজ্ঞাত নামা আরো ৪-৫ জন। এ মামলায় পুলিশ রাতে মুক্তার আলীর বাড়িতে আভিযান পরিচালনা করেন।

এ সময় পুলিশ মুক্তার আলী ঘরের আলমারির ড্রয়ার থেকে ৯৪ লক্ষ ৯৮ হাজার নগদ টাকা এবং অন্য ঘর থেকে একটি বিদেশী পিস্তল, একটি সাটার গান, দুটি বন্দুক, ৪৩ রাউন্ড তাজা গুলি এবং সাতপুরি হেরোইন, ১০ গ্রাম গাঁজা ও ২০ পিচ ইয়াবা জব্ধ করেন।

একই সাথে মুক্তার আলীর স্ত্রী জেসমিন আক্তার(৪০) ও দুই ভাতিজা সোহাগ(২৩) ও শান্ত ইসলাম(২২) কে আটক করেন।

বাঘা থানা অফিসার ইনচার্জ(ওসি) নজরুল ইসলাম জানান, অন্যায় ভাবে মারপিট, মাদক, এবং অবৈধ অস্ত্র রাখার অভিযোগে থানায় পৃথক তিনটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এর মধ্যে মুক্তার আলীর বিরুদ্ধে মারপিট মাদক এবং অস্ত্র মামলা দায়ের করা হয়েছে।

একই সাথে তার স্ত্রীর নামে দুটি মামলা এবং তার দুই ভাতিজার বিরুদ্ধে মারপিট মামলা দেয়ার মধ্য দিয়ে বুধবার সকালে তাদেরকে আদালতে প্রেরণ করেছি।

এ বিষয়ে মেয়র মুক্তার আলীর সাথে কথা বলার চেষ্টা করলে তার ব্যবহৃত মোবাইলটি বন্ধ পাওয়া যাই। তবে পৌর কাউন্সিলর কার্তিক হালদার ও মানিক মিয়া এবং তার ছেলের শ্বশুর আলহাজ শামিম হোসেন , তার স্ত্রী জেসমিন আক্তার এবং নিকট আত্নীয় নাজমুল হোসেন বলেন, বাড়ীতে টাকা পাওয়ার ঘটনা সঠিক। এটি ব্যবসা সংক্রান্তে ঘটনার দিন বিকেলে পাওয়া নগদ অর্থ।

উত্তরা প্রতিদিন/শাহ্জাদা মিলন

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ১০:৩৩ অপরাহ্ণ | বুধবার, ০৭ জুলাই ২০২১

uttaraprotidin.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১  
আব্দুল্লাহ্ আল মাহমুদ বাবলু সম্পাদক
এনায়েত করিম প্রধান বার্তা সম্পাদক
প্রধান কার্যালয়

৫৩০ (২য় তলা), দড়িখরবোনা, উপশহর মোড়, রাজশাহী-৬২০২

ফোন: ০৭২১-৭৬০১৪৩, ০১৯৭৭১০০০২৭

E-mail: uttaraprotidin@gmail.com