সোমবার ২রা আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১৮ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

বড়াইগ্রামে বাঘাট হাট

মেম্বারের বিরুদ্ধে হাটের সরকারি জমি বরাদ্দের অভিযোগ

বড়াইগ্রাম (নাটোর) প্রতিবেদক   |   শনিবার, ০৩ জুলাই ২০২১ | প্রিন্ট

মেম্বারের বিরুদ্ধে হাটের সরকারি জমি বরাদ্দের অভিযোগ

নাটোরের বড়াইগ্রামে সরকারি জায়গাতে বরাদ্দ দেয়া ইউপি সদস্যের ঘর

-প্রতিনিধি

নাটোরের বড়াইগ্রামে হাটের সরকারী জায়গা দখল করে বিভিন্ন লোকের কাছে টাকার বিনিময়ে বরাদ্দ দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে আলম হোসেন নামে এক ইউপি সদস্যের (মেম্বার) বিরুদ্ধে।

উপজেলার নগর ইউনিয়নের বাঘাইট বাজারে এই ঘটনা চলমান রয়েছে। আলম হোসন নগর ইউনিয়ন পরিষদরে সদস্য ও বাঘাট গ্রামের মৃত আবুল প্রামানিকের পুত্র। এই কাজে তার সহযোগি হিসেবে কাজ করছেন আব্দুল আজিজের পুত্র আলম মোল্লা।

স্থানীয় আজিমুদ্দিন জানান, বাঘাট বাজার ভিতরে ৩৫ শতাংশ সরকারী জায়গা রয়েছে। সেই সমস্ত জায়গাতে আলম মেম্বার ৬ থেকে ১০ হাজার টাকা নিয়ে দোকান বরাদ্দ দিচ্ছেন। প্রচার করছেন যে বাজারের টয়লেট নির্মাণের জন্য এই টাকা নেয়ার ক্ষেত্রে ভূমি অফিসের অনুমতি রয়েছে।

এদিকে সম্প্রতি বাজারের দেড় শতাধিক দোকান থেকে টয়লেট নির্মাণের নামে ৩’শ থেকে ১ হাজার টাকা করে চাঁদা তুলেছেন । ওই টাকায় সামান্য কিছু কাজ করে ফেলে রাখা হয়েছে।

তিনি আরো জানান, কিছুদিন আগে ভূমি অফিসের লোকজন ব্রীজ করার জন্য বাঘাট বাজার থেকে জাগরণী বিদ্যানিকেত উ”চ বিদ্যালয় অভিমুখে বাজার সংলগ্ন রাস্তার সীমানা নির্ধারণ করে দিয়েছেন। আব্দুল আজিজের পুত্র আলম মোল্লা সেই সরকারী জায়গা দখল করে ঘর নির্মাণ করে উচ্চ মূল্যের জামানতের মাধ্যমে ভাড়া দিয়েছেন।
ঘর নির্মাণের ফলে বাজারের পানি নদীতে নামার পথ বন্ধ হয়ে গেছে। ফলে বাজারে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হচ্ছে। একটু বৃষ্টি হলেই দোকানের পানি প্রবেশ করে মালামালের ক্ষতি হচ্ছে। আর তার সকল কাজের নেপথ্যে সহযোগিতা করছেন ওয়ার্ড সদস্য আলম হোসেন।
বাজার সংলগ্ন বড়াল নদীর উপরের লোহা ব্রীজের পূর্ব পাশে লিয়াকত হোসেন নামের লোক কে হোটেল করে দিয়েছেন আলম। যার ফলে সেখানেও পানি নিষ্কাশন বন্ধ হয়ে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হচ্ছে।
আলম মেম্বারের নিকট থেকে ঘর বরাদ্দ নেওয়া শামসুদ্দিন বলেন, আমি ৬ হাজার টাকা দিয়ে আলম মেম্বারের নিকট থেকে জায়গা বরাদ্দ নিয়েছি। এখন আলম মেম্বারের সহযোগী আলম মোল্লা তার দেখ ভাল করছেন।

নিজাম উদ্দিন বলেন, আমি আলম মেম্বারকে ৬ হাজার টাকা দিয়েছি। ঘর করার কাজ শেষের পথে। এলাকাসী রিফাত জানান, বাজারে প্রায় ২০টির মত দোকান আলম মেম্বার টাকার বিনিময়ে বরাদ্দ দিয়েছেন।

এ বিষয়ে আলম মেম্বার বলেন, দোকানদারদের নিকট থেকে কিছু টাকা নিয়ে টয়লেট করা হচ্ছে। বাজারের টাকায় বাজারের উন্নয়ন এতে দোষের কিছু নাই।

দোকান ঘর নির্মাণের ঘটনায় বড়াইগ্রামের ইউএনও জাহাঙ্গীর আলম বলেন, তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

উত্তরা প্রতিদিন/শাহ্জাদা মিলন

 

 

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ১০:০৮ অপরাহ্ণ | শনিবার, ০৩ জুলাই ২০২১

uttaraprotidin.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

আব্দুল্লাহ্ আল মাহমুদ বাবলু সম্পাদক
এনায়েত করিম প্রধান বার্তা সম্পাদক
প্রধান কার্যালয়

৫৩০ (২য় তলা), দড়িখরবোনা, উপশহর মোড়, রাজশাহী-৬২০২

ফোন: ০৭২১-৭৬০১৪৩, ০১৯৭৭১০০০২৭

E-mail: uttaraprotidin@gmail.com