বৃহস্পতিবার ২৮শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১২ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম >>
শিরোনাম >>

পত্নীতলায় নারী ব্যবসায়ীকে ধর্ষণ চেষ্টা, আটক ১

নওগাঁ প্রতিবেদক   |   শনিবার, ০৩ জুলাই ২০২১ | প্রিন্ট

পত্নীতলায় নারী ব্যবসায়ীকে ধর্ষণ চেষ্টা, আটক ১

নওগাঁর পত্নীতলায় কুপ্রস্তাবে সাড়া না দেয়ায় জনৈক এক নারী ব্যবসায়ীকে দোকানে ঢুকে জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা করেছে অপর দোকানের এক সেলসম্যানসহ তার সহযোগীরা।

এ ঘটনায় ঐ নারীর গর্ভের সন্তান নষ্ট হয়ে যায়। ঘটনাটি ঘটেছে, গত ৩ মার্চ দুপুরে উপজেলা সদর নজিপুর বাসস্ট্যান্ড এলাকার সাপাহার সড়কের আহসান মার্কেটে। উক্ত ঘটনায় পত্নীতলা থানা পুলিশ শনিবার একজনকে আটক করেছে।

মামলার বিবরণী থেকে জানা যায়, নজিপুর বাসস্ট্যান্ড এলাকার সাপাহার সড়কের আহসান প্লাজা মার্কেটে নজিপুর পলিপাড়া এলাকার আ. সালামের স্ত্রী সালমা ফ্যাশনের সত্বাধিকারী অন্তঃসত্ত্বা রহিমা আক্তারকে (২৬) একই মার্কেটের তরিকুল ইসলামের দোকান স্বপ্নপূরী ফ্যাশনের সেলসম্যান ধামইরহাট উপজেলার খেলনা গোপীরামপুর এলাকার মৃত ময়েজ উদ্দীনের ছেলে রবিউল ইসলাম (৩৫) দীর্ঘদিন ধরে কুপ্রস্তাব ও বিয়ের প্রস্তাবসহ বিভিন্ন অশোভন ইঙ্গিত দিয়ে আসছিল।

এরই এক পর্যায় গত ৩ মার্চ বুধবার দুপুরে রবিউল ইসলাম নজিপুর মাদ্রাসা পাড়া এলাকার মৃত আবুল কাশেমের ছেলে গণি (৩১), মান্দা উপজেলার নুরুল্লাবাদ এলাকার আজিজ প্রামানিকের ছেলে নাজমুল প্রামানিক (৩৪) ও ধামইরহাট উপজেলার চকশরিফ এলাকার তোফাজ্জল হোসেনের ছেলে তরিকুল ইসলাম (৩৮) এর যোগসাজসে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে সালমা ফ্যাশনের দোকান ঘরে ঢুকে রহিমার মুখ চেপে ধরে মুখে গামছা বেঁধে মেঝেতে ফেলে পড়নের বোরকা ও কামিজ টেনে ছিড়ে ফেলে এবং জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা করে।

এ সময় রহিমা নিজেকে বাঁচাতে চিৎকার করতে থাকলে রবিউলসহ তার সঙ্গীরা রহিমাকে কিল, ঘুষি ও তলপেটে লাথি মেরে পালিয়ে যায়। পরে অন্যান্য দোকানীরা রহিমার স্বামী আ. সালামকে খবর দিলে তাদের সহযোগিতায় তাৎক্ষণিক উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে ২ দিন চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় চিকিৎসক জানায় রহিমার গর্ভের সন্তানটি উক্ত ঘটনায় নষ্ট হয়ে গেছে।

রহিমা নজিপুর বাসস্ট্যান্ড বনিক কমিটি বরাবার বিষয়টি নিয়ে অভিযোগ দিয়েও কোন সুরাহা না পাওয়ায় গত ১৯মে বুধবার নওগাঁ বিজ্ঞ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনাল-২ এ মামলা দায়ের করে।

এ ব্যাপারে, পত্নীতলা থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) হাবিবুর রহমান জানান, মামলার প্রেক্ষিতে শনিবার প্রধান আসামি রবিউলকে আটক করা হয়েছে। অপর আসামিরা পলাতক থাকায় তাদের আটক করতে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে। মামলা নং- ২৯, তাং- ২৭/০৬/২০২১ইং।

এ বিষয়ে বাদীর স্বামী আ. সালাম জানান, বিচারের জন্য দ্বারে দ্বারে ঘুরেও কোন বিচার না পাওয়ায় আদালতের সরণাপন্ন হয়েছি। এদিকে মামলার পর থেকে আসামিসহ তাদের সহযোগীরা আমার পরিবারকে নানা ভাবে হুমকি প্রদান করছে।

উত্তরা প্রতিদিন/শাহ্জাদা মিলন

 

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ১০:১৬ অপরাহ্ণ | শনিবার, ০৩ জুলাই ২০২১

uttaraprotidin.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

এনায়েত করিম সম্পাদক (ভারপ্রাপ্ত)
প্রধান কার্যালয়

৫৩০ (২য় তলা), দড়িখরবোনা, উপশহর মোড়, রাজশাহী-৬২০২

ফোন: ০৭২১-৭৬০১৪৩, ০১৯৭৭১০০০২৭

E-mail: uttaraprotidin@gmail.com