শুক্রবার ২৯শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১৩ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম >>
শিরোনাম >>

নিয়ামতপুরের ছাতড়া বাজারে রাস্তা সংস্কার কাজে অনিয়মের অভিযোগ 

নিয়ামতপুর (নওগাঁ) প্রতিবেদক   |   রবিবার, ২৭ জুন ২০২১ | প্রিন্ট

নিয়ামতপুরের ছাতড়া বাজারে রাস্তা সংস্কার কাজে অনিয়মের অভিযোগ 

নিয়ামতপুরের ছাতড়া বাজারে রাস্তা পুন:নির্মাণে এভাবে দক্ষিন দিকে ফুটপাতের জন্য ছেড়ে দেয়া হলেও অন্য দিকে নেই

-প্রতিনিধি

উন্নয়ন কাজে বার বার বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগ। ড্রেন নির্মাণ, রাস্তা পুনঃনির্মাণ সব ক্ষেত্রেই। কেন এত অনিয়ম এমনটাই প্রশ্ন ভুক্তভোগী ও এলাকাবাসীর। অনিয়মের অভিযোগগুলো উঠেছে নওগাঁর নিয়ামতপুরের সুনামধন্য ছাতড়া বাজারে।

বাজারের ড্রেন নির্মাণ থেকে শুরু করে রাস্তা পুনঃনির্মাণ সবটাতেই অনিয়মের অভিযোগ।
ভুক্তভোগী ছাতড়া বাজারের রাস্তার দক্ষিন দিকের ব্যবসায়ীদের অভিযোগ ড্রেন নির্মাণে আমাদের নিজস্ব জায়গার উপর নির্মিত মার্কেটের ঘর ভেঙ্গে নিয়েছে। অথচ সবার ক্ষেত্রে তা মানা হয়নি।

কারো কারো মার্কেট রক্ষা করে ড্রেনকে বাঁকা করা হয়েছে। আবার রাস্তা পুনঃনির্মানের ক্ষেত্রের একই অভিযোগ। কোথাও কোথাও ফুটপাতের জন্য জায়গা রাখা হলেও কোথাও কোথাও ফুটপাতের জন্য একটুও জায়গা রাখা হচ্ছে না। দোকান ঘরের বারান্দা ভেঙ্গে রাস্তা নির্মাণ করছে।

ভোক্তভোগী ছাতড়া বাজারের সবচেয়ে বড় ব্যবসায়ী একরামুল হক অভিযোগ করে এ প্রতিবেদককে বলেন, ড্রেন নির্মাণ থেকেই অনিয়ম। স্বজনপ্রীতি করে ড্রেন, রাস্তা নির্মাণ করছে। কারো কারো মার্কেট রক্ষা করে ড্রেন রাস্তা নির্মান করছে আবার কারো কারো দোকান ঘরের বারান্দা এমনকি ঘর পর্যন্ত ভেঙ্গে নিয়ে নিচ্ছে রাস্তার ভেতর। কেন এমন অনিয়ম আমি উর্ধ্বেতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

আরেক ভুক্তভোগী ব্যবসায়ী জাহিদ ইকবাল বলেন, পশুর হাটের মোড় থেকে শুধু রাস্তার দক্ষিন দিকে ফুটপাতের জন্য ৩ ফিট জায়গা রাখলেও ২০/৩০ গজ পশ্চিমে এসে ফুটপাতের জন্য আর কোন জায়গা রাখা হয়নি। আমার কর্তৃপক্ষের কাছে প্রশ্ন কেন এমনটা করা হলো ? তাছাড়া রাস্তার উত্তর দিকে ফুটপাতের জন্য কেন কোন জায়গা রাখা হয়নি। সরকারী উন্নয়নমূলক কাজে কেন এত অনিয়ম।

ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি আব্দুস সাত্তার বলেন, সরকার ছাতড়া বাজারকে আধুনিকায়ন করতে চায়, তাই এই উন্নয়নমূলক কাজ। কিন্তু কিছু স্থানীয় স্বার্থানেষী মহল নিজেদের স্বার্থে চক্রান্ত করে উন্নয়নমূলক কাজকে প্রশ্নবিদ্ধ করে তুলছে। এটা হতে দেওয়া যায় না। আমি সংশ্লিষ্ট মহলের কাছে জোর দাবী জানাচ্ছি অবিলম্বে বিষয়গুলোকে আমলে নিয়ে সঠিকভাবে কাজ করার জন্য।

এ বিষয়ে স্থানীয় চন্দননগর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান বদিউজ্জামান বদি বলেন, এগুলো আমার এখতিয়ারে নেই। এলজিইডির কাজ তারাই ভালো জানে। কোন সমস্যা হলে তারা আমাকে সাথে নিয়ে যায় এইটুকু।

উপজেলা প্রকৌশলী (এলজিইডি) নূর ই আলম সিদ্দিকী বলেন, হাটের দিন রাস্তায় অত্যান্ত যানজট সৃষ্টি হয়। রাস্তায়, ভ্যান বা চার্জার দাঁড়ানোর মত কোন জায়গা থাকে না, তাই আমরা একদিকে বেশী করে জায়গা রেখেছি যাতে ভ্যান বা চার্চার মূল রাস্তা বাদ দিয়ে দাঁড়াতে পারে।

যদি দুদিকেই জায়গা রাখতাম তাহলে কোন দিকেই ভ্যান বা চার্জার দাঁড়াতে পারতো না। আর রাস্তার পশ্চিম দিকে কোন জায়গা না ছাড়ার কারণ সাইডে কোন জায়গাই নেই। আমরা তো কারো সমস্যা সৃষ্টি করতে চাই না। স্থানীয় জনগণের সহযোগিতা পেলে সঠিকভাবেই কাজ করতে চাই।

উত্তরা প্রতিদিন/শাহ্জাদা মিলন

 

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ৫:৪০ অপরাহ্ণ | রবিবার, ২৭ জুন ২০২১

uttaraprotidin.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০  
এনায়েত করিম সম্পাদক (ভারপ্রাপ্ত)
প্রধান কার্যালয়

৫৩০ (২য় তলা), দড়িখরবোনা, উপশহর মোড়, রাজশাহী-৬২০২

ফোন: ০৭২১-৭৬০১৪৩, ০১৯৭৭১০০০২৭

E-mail: uttaraprotidin@gmail.com